মাদারীপুরে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

মাদারীপুরে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা, পূর্ব শত্রুতার জেরে মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার আলীনগর

ইউনিয়নের ফাঁসিয়াতলা বাজারের কাছে মানিক সরদার (৫০) নামের এক ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

করা হয়েছে। গতকাল সোমবার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

আরও খবর পেতে ভিজিট করুউঃ distonews.com

মাদারীপুরে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

নিহত মানিক সরদার ওই এলাকার আলমগীর সরদারের ছেলে। মানিক সরদার ফাঁসিয়াতলা বাজারে কাপড়ের ব্যবসা করতেন।

চলতি বিপিএলে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের পারফর্মেন্স একেবারে তলানিতে। কিন্তু দল নিয়ে তাদের নাটক চলছেই।

আজ মঙ্গলবার মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকার বিপক্ষে ম্যাচের আগমুহূর্তে জানা গেল, চট্টগ্রাম আবার অধিনায়ক বদলেছে!

সিলেটে অনুষ্ঠিত দিনের প্রথম ম্যাচে নতুন অধিনায়ক হিসেবে টস করতে দেখা যায় তরুণ অল-রাউন্ডার হোসেন ধ্রুবকে।

এর আগে মেহেদি হাসান মিরাজকে সরিয়ে নাঈম ইসলামকে অধিনায়ক করা হয়েছিল।
পরিবারের দাবি,

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রাজনৈতিক বিরোধের জেরে এই খুন করা হতে পারে পুলিশ

ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে,

গতকাল রাত ৮টার দিকে ফাঁসিয়াতলা বাজারের কাছে একদল দুর্বৃত্ত মানিককে কুপিয়ে নদীর পাড়ে ফেলে রাখে।

স্থানীয় লোকজন তাঁকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত

চিকিত্সক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে মাদারীপুর সদর থানার পুলিশ হাসপাতালে আসে।

নিহতের চাচাতো ভাই সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘আমার ভাই গত ইউপি নির্বাচনে বর্তমান চেয়ারম্যান শাহেদ পারভেজের

পক্ষে কাজ করেছিল পরাজিত প্রার্থী মিলন সরদারের বিপক্ষে ছিল। ইউপি নির্বাচনের দলাদলির কারণেই আমার

চাচাতো ভাইকে খুন করা হতে পারে বলে আমরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি। আমরা সরকারের কাছে ন্যায়বিচার চাই। ’

সেই ঘটনা নিয়ে নাটক কম হয়নি মিরাজ

তো ঘুরিয়ে ফিরিয়ে ফিক্সিংয়ের অভিযোগও তুলেছিলেন। বিপিএলে আর খেলবেন না বলেও ঘোষণা দিয়েছিলেন। তবে প্লেনে ওঠার আগে তাকে বুঝিয়ে সুঝিয়ে ফেরত নিয়ে যান চট্টগ্রামের কর্মকর্তারা।
সেই অধিনায়ক নাঈম ইসলাম আজকের ম্যাচে চট্টগ্রাম একাদশেও নেই! ১৩ নম্বর ক্রিকেটার হিসেবে তার নাম তালিকায় দেখা যাচ্ছে‍! মিরাজ নেতৃত্ব হারানোর পর দায়ী করেছিলেন চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের চিফ অপারেটিং অফিসার (সিওও) ইয়াসির আলম।

মাদারীপুরে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

আজ এ ব্যাপারে ইয়াসির আলমকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি এ ব্যাপারে কিছু জানি না’।

এই বিষয়ে কালকিনি থানার ওসি ইশতিয়াক আশফাক রাসেল বলেন, ‘ফাঁসিয়াতলায় মানিক সরদারকে কে বা কারা হত্যা করেছে, সে ব্যাপারে এখনো আমরা স্পষ্ট নই। এলাকায় মানিকের সঙ্গে কারো বিরোধ ছিল কি না, আমরা তা খতিয়ে দেখছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.