প্রাইভেট কারচালকের খামখেয়ালিতেই ৩ প্রাণহানি

প্রাইভেট কারচালকের খামখেয়ালিতেই ৩ প্রাণহানি, দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার ঘোড়াঘাট

রেলগুমটিতে রেল দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহতের ঘটনায় আজ মঙ্গলবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রাথমিক তদন্ত

শুরু করেছে তিন সদস্য তদন্ত কমিটি। আগামী সপ্তাহে তারা দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে তদন্ত দাখিল করবেন।

আরও খবর পেতে ভিজিট করুউঃ distonews.com

প্রাইভেট কারচালকের খামখেয়ালিতেই ৩ প্রাণহানি

এর আগে ২ ফেব্রুয়ারি বুধবার সকালে কুড়িগ্রাম এক্সেপ্রেস ট্রেনের সঙ্গে একটি প্রাইভেট কারের ধাক্কায়

ঘটনাস্থলেই ৩ জন নিহত হন। এ ঘটনায় মো.বারিউল করিম খান অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট দিনাজপুরকে আহ্বায়ক,

হাকিমপুর-ঘোড়াঘাট সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার শরীফ আল রাজিব এবং বাংলাদেশ রেলওয়ে পার্বতীপুর শাখার সহকারী

নির্বাহী প্রকৌশলী আবু জাফর মো.রাকিব হাসানকে সদস্য করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

তদন্ত কমিটির সদস্যরা ওই স্থানের গেটকিপার

সাইফুজ্জামানসহ স্থানীয় ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলেন। জানতে চাইলে তদন্ত কমিটির সদস্য হাকিমপুর

ঘোড়াঘাট সার্কেলের সিনিয়র পুলিশ সুপার শরীফ আল রাজিব বলেন, প্রথমিকভাবে আজ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে।

নিহত ব্যক্তিদের ব্যবহৃত কারটির চালকের অদ্যক্ষতা ও খামখেয়ালির কারণে এই ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিক তদন্তে

উঠে এসেছে। প্রাইভেট কারে ৪ জন ছিলেন। ৩ জন নিহত হয়েছেন। বেঁচে যাওয়া ব্যক্তি চালক না, যাত্রী।

তাকে আমরা খুঁজছি। তবে পেলে দুর্ঘটনার আসল তথ্য জানা যাবে। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে তদন্ত কমিটির

পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট জেলা প্রসাশকের কাছে প্রদান করা হবে

জানতে চাইলে বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও পরিমল কুমার সরকার বলেন, ট্রেনের ধাক্কায় প্রাইভেট কারের তিন ব্যক্তি নিহতের ঘটনায় তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি তদন্ত করছে। তারা আগামী সপ্তাহের মধ্যে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে তদন্ত রিপোর্ট জমা দেবেন। আগামীতে এমন দুর্ঘটনা যেন না ঘটে সেই বিষয়ে সর্তক থাকতে হবে। দোষি ব্যক্তিদের দ্রুত আইনের আওতায় নেয়া হবে।

প্রাইভেট কারচালকের খামখেয়ালিতেই ৩ প্রাণহানি

প্রসঙ্গত, গত ২ ফেব্রুয়ারী ভোরে বিরামপুর উপজেলার দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ মহাসড়কের ঘোড়াঘাট রেলগুমটিতে কুড়িগ্রাম এক্সেপ্রেস ট্রেনের সঙ্গে একটি প্রাইভেট কারের ধাক্কায় ৩ ব্যক্তি নিহত হন। নিহতরা মধ্যপাড়া পাথরখনিতে কর্মরত ছিলেন। তারা সবাই বদরগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা। তাদের পরিবারের ভাষ্যমতে, তারা জয়পুরহাট বিআরটিএ অফিসে মোটরসাইকেলের ড্রাইভিং লাইন্সেসের জন্য পরীক্ষা দিতে যাচ্ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.