আজ অনুসন্ধান কমিটির দ্বিতীয় বৈঠক

আজ অনুসন্ধান কমিটির দ্বিতীয় বৈঠক, আজ মঙ্গলবার বিকেলে নির্বাচন কমিশন গঠনে অনুসন্ধান

কমিটির দ্বিতীয় বৈঠক বসছে। বৈঠকে নাম পাওয়ার বিষয় নিয়ে করণীয় ঠিক করতে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত হতে

পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে। আগামী শনি ও রবিবার আরো দুটি বৈঠক করা হবে সুধীসমাজ ও গণমাধ্যম

ব্যক্তিত্ব এবং নির্বাচনসংক্রান্ত বিশেষজ্ঞদের নিয়ে। তাঁদের কোনো পরামর্শ বা প্রস্তাব থাকলে, তা নেওয়া হবে।

আরও খবর পেতে ভিজিট করুউঃ distonews.com

আজ অনুসন্ধান কমিটির দ্বিতীয় বৈঠক

রবিবারই শেষ হচ্ছে নূরুল হুদা কমিশনের মেয়াদ। সে হিসাবে এবার নির্বাচন কমিশন গঠনে দেরি হতে

পারে বলেই সংশ্লিষ্টদের ধারণা। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ড. শাহদীন মালিক গতকাল কালের কণ্ঠকে বলেন,

সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে একটি নির্বাচন কমিশন থাকবে। সেখানে বর্তমান

নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শূন্য হওয়ার পর কিছুদিন নির্বাচন কমিশন না থাকাটা অস্বাভাবিক হবে। তবে শূন্য

রাখা যাবে না, এ ধরনের কোনো কথা বলা নেই। অতীতেও কয়েকবার কিছু সময়ের জন্য দেশে নির্বাচন

কমিশন ছিল না। এবারও যৌক্তিক কারণে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনে দেরি হলে তেমন সমস্যা হবে বলে মনে হয় না

তা ছাড়া এখন তো গুরুত্বপূর্ণ কোনো নির্বাচনও নেই

নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের কর্মকর্তারা বলছেন, বর্তমান কমিশনের মেয়াদ শেষ হওয়ার ছয় থেকে ১৫ দিন পর্যন্ত সময়ের ব্যবধানে নতুন কমিশন গঠনেরও নজির আছে। ২০১৭ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি কাজী রকিবউদ্দীন আহমদের প্রধান নির্বাচন কমিশনার পদের মেয়াদ শেষ হয়। সেই শূন্যপদে বর্তমান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা দায়িত্ব গ্রহণ করেন ওই বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি।

২০০৭ সালে সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমলে বিচারপতি এম এ আজিজ প্রধান নির্বাচন কমিশনারের পদ ছাড়েন ওই বছরের ২১ জানুয়ারি। এ টি এম শামসুল হুদা ওই শূন্যপদে নিয়োগ পান ১৪ দিন পর। এর আগে প্রধান নির্বাচন কমিশনার আবু হেনার পদ শূন্য হয় ২০০০ সালের ৮ মে। ওই বছরের ২৩ মে এম এ সাঈদ এ পদে নিয়োগ পান। এ অবস্থায় এবার নির্বাচন কমিশন গঠন বিলম্বিত হলেও ব্যতিক্রম কিছু হবে না।

আজ অনুসন্ধান কমিটির দ্বিতীয় বৈঠক

মহাসড়কের মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. শাফায়েত হোসেন বলেন, ‘যখন দুর্ঘটনার ঘটনা ঘটে তখন ছিল ভোরবেলা এবং দুর্ঘটনার স্থানটি অনেকটাই নির্জন এলাকা। তাই পিকআপটিকে এখনো শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। তবে সেটি শনাক্ত এবং ঘাতক চালককে আটক করার চেষ্টা চলছে। ’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জেপি দেওয়ান বলেন, বাবার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার দিনে একসঙ্গে এত সদস্যের প্রাণহানি হৃদয়বিদারক। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সহায়তা দেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.